ডা. সাইদুজ্জামানের রেজিস্ট্রেশন ৬ মাসের জন্য স্থগিত

2 weeks ago 168

চিকিৎসায় গাফিলতি ও অবহেলা প্রমাণিত হওয়ায় রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা. খান মো. সাইদুজ্জামানের রেজিস্ট্রেশন স্থগিত করেছে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল (বিএমডিসি)। মঙ্গলবার (৭ মে) বিএমডিসির রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) ডা. মো. লিয়াকত হোসেনের সই করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ‘ডা. খান মো. সাইদুজ্জামানের বিরুদ্ধে অভিযোগকারী মোহাইমিন মোস্তফা তার পিতার চিকিৎসায় অবহেলা জনিত কারণ উল্লেখ করে অত্র কাউন্সিলে অভিযোগ দাখিল করেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে কাউন্সিল অভিযোগকারী এবং চিকিৎসক উভয়ের সাক্ষাৎকার গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে কাউন্সিল কর্তৃক তদন্ত কমিটি গঠন পূর্বক তদন্তে প্রমাণিত হয় যে, একজন কনসালটেন্ট চিকিৎসক হয়েও ‘গল ব্লাডার মাস’ বিষয়টি জানার পরও তার ‘প্রেসক্রিপশন প্যাড’ এ তা উল্লেখ করেননি এবং রোগীর কোনো আত্মীয়-স্বজনকে গল ব্লাডার ক্যানসারের বিষয়টি অবহিত করা হয়নি। এটি গুরুতর অপরাধ এবং চিকিৎসায় চিকিৎসকের যথেষ্ট গাফিলতি ও অবহেলা ছিল, তা প্রমাণিত হয়েছে।’

এমতাবস্থায় বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইনের ক্ষমতাবলে বিএমঅ্যান্ডডিসি থেকে প্রদত্ত তার রেজিস্ট্রেশন ছয় মাসের জন্য স্থগিত করা হলো। যা ৮ মে ২০২৪ থেকে কার্যকর হবে। উল্লেখিত সময়ে বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন, ২০১০ (৬১ নং আইন) এর ধারা ২২ (১) অনুযায়ী তার রেজিস্ট্রেশন স্থগিতকালীন সময়ে নিজেকে চিকিৎসক হিসাবে কোথাও কোনো প্রকার চিকিৎসা সেবা দিতে পারবেন না। এমনকি উক্ত সময়ে তিনি নিজেকে চিকিৎসক হিসেবে পরিচয় দিতে পারবেন না’, বলা হয় বিএমডিসির বিজ্ঞপ্তিতে।

এএএম/এমআইএইচএস

Read Entire Article